সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০১:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রূপসায় বিদ্যুৎ স্পষ্টে একজনের মৃত্যু খালিশপুর থানা পুলিশের অভিযানে ১ টি ল্যাপটপ ও ক্যামেরা সহ চোর চক্রের সদস্য গ্রেফতার খেলা ধুলা শিক্ষার্থীদের মন ও শরীর দুটোই ভালো রাখে-ভূমিমন্ত্রী বাড়লো এলপিজির দাম অবৈধ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিকে অভিযান জোরদার হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী খুলনায় ভূমিদস্যু ও চাঁদাবাজের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় মিথ্যা মানববন্ধন ও গায়েবী মামলার হুমকি রামপালে পুলিশের অভিযানে নারী মাদক কারবারি আটক খুলনার পাইকগাছায় বিশ্ব বন্যপ্রাণী দিবস পালিত বাগেরহাটের রামপালে বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাতীয় ভোটার দিবস পালন খেলা ধুলা শিক্ষার্থীদের মন ও শরীর দুটোই ভালো রাখে-ভূমিমন্ত্রী

ফকিরহাটে ইউএনওর বিরুদ্ধে সরেজমিনে তদন্ত করলেন জেলা প্রশাসন

খুলনার কাগজ
  • আপডেট সময় : শনিবার, ৪ মার্চ, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক।।বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মনোয়ার হোসেন কর্তৃক উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শেখ মিজানুর রহমানের গায়ে হাত তোলার ঘটনার সরেজমিন তদন্ত করলেন জেলা প্রশাসন।

শুক্রবার ফকিরহাট বিশ্বরোড সংলগ্ন এলএসডি গোডাউন (কাঠালতলা) সংলগ্ন ঘটনাস্থলে ভুক্তভোগী শেখ মিজানুর রহমান, প্রত্যক্ষদর্শী জাহিদুল ইসলাম ও মোল্যা হাবিবুর রহমানের স্বাক্ষ্য গ্রহন ও তাদের কাছ থেকে লিখিত জবানবন্দি গ্রহন করেন বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আরিফুল ইসলাম। পরে অভিযুক্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মনোয়ার হোসেনের সাথে স্বাক্ষাত করেন তিনি।এর আগে বৃহস্পতিবার (০২ মার্চ) সরেজমিন তদন্তের সময়ে উপস্থিত থাকতে উভয় পক্ষকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নোটিশ দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত বুধবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শেখ মিজানুর রহমান বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল যোগে গরুর ফার্মে যাচ্ছিলেন। এসময় কাঠালতলা মোড় এলাকায় পৌছালে দ্রুত গতিতে ইউএনও’র গাড়িটি ব্যাকে (পিছনে) আসে। তখন ইউএনও‘র গাড়ির সাথে মোটরসাইকেলের সামান্য ধাক্কা লাগে। পরে ইউএনও গাড়ি থেকে নেমে এসে মিজানুর রহমানকে মূখে থাপ্পর দেয় এবং গাড়িতে তুলে দেড় ঘন্টা আটকে রাখে। পরে লোকজন জড়ো হলে তাকে ছেড়ে দেয়। এনিয়ে প্রশাসনে তোলপাড় শুরু হয়।কাঠালতলা এলাকায় থাকা একটি সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, খুলনা-মাওয়া মহাসড়ক দিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার গাড়িটি ফলতিতার দিকে যাচ্ছিল। মাত্র তিন সেকেন্ডের ব্যবধানে গাড়িটি পুনরায় পিছনে আসেন। তখন পার্শ্ব রাস্তা থেকে উঠে আসা মিজানুর রহমানের মোটরসাইকেলের সাথে ইউএন‘র গাড়িটির সামান্য ঘষা লাগে। প্রথমে গাড়ি চালক নিচে আসেন। পরে ইউএনও গাড়ি থেকে নামেন এবং মোঃ মিজানুর রহমানকে থাপ্পর দেন।এরপর গাড়ির পিছনে উঠিয়ে নিয়ে চলে যান ইউএনও।

এ ব্যাপারে উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শেখ মিজানুর রহমান বলেন, ইউএনও কর্তক শারীরিক লাঞ্ছিত হওয়ায় প্রশাসন আমাকে আস্বস্ত করেছেন। এ বিষয়ে তারা পদক্ষেপ গ্রহন করবেন বলে জানিয়েছেন। যেহেতু এটা প্রশাসনের ব্যপার তাই তারা যেটা ভাল মনে করবেন আমি তাই মেনে নেবো।

বাগেরহাট জেলা প্রসাশকের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আরিফুল ইসলামের কাছে তদন্ত সম্পর্কিত বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি এখনই সাংবাদিকদের এ বিষয়ে কিছু জানাতে রাজি হননি।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Khulnar Kagoj
ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট Shakil IT Park