বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

সামান্য ভোটে হারলেন হিরো আলম

খুলনার কাগজ
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
ডেস্ক রিপোর্ট : বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনের উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলম অল্প ভোটের ব্যবধানে হেরে গেছেন। আসনটিতে মোট ১১২টি কেন্দ্রের ফলাফলে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) নেতা রেজাউল করিম তানসেন মশাল প্রতীকে ২০৪৩৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।
একতারা প্রতীকে হিরো আলম পেয়েছেন ১৯৪৮৬ ভোট।
বুধবার (০১ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে উপনির্বাচনের ফলাফল গ্রহণ ও পরিবেশন কেন্দ্র থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
বগুড়া-৪ আসন ছাড়াও বগুড়া সদর উপজেলা তথা বগুড়া-৬ আসনেও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে উপনির্বাচনে অংশ নেন হিরো আলম। সেই আসনে তিনি বিপুল ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন। বগুড়া-৬ আসছে তিনি ভোট পেয়েছেন ৪ হাজার ৫৪০। এ আসনে রাগিবুল আহসান রিপু নৌকা প্রতীকে ৩৩ হাজার ৪৬২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।
বিএনপির ছেড়ে দেওয়া ছয়টি আসনে বুধবার (১ ফেব্রুয়ারি) ভোটগ্রহণ করা হয়। বগুড়া সদর ও নন্দীগ্রাম-কাহালু আসনে উপনির্বাচনে প্রার্থী হন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের আলোচিত ব্যক্তি আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম।
ভোটগ্রহণ চলাকালে হিরো আলম বলেন, সদর আসনে নানা বিশৃঙ্খলা হয়েছে। কিন্তু দুপুরের পর নন্দীগ্রাম-কাহালু এলাকায় এসে দেখেছি, সবাই আমার একতারা মার্কায় ভোট দিয়েছেন। সুন্দর পরিবেশে ভোট হয়েছে। সব ঠিক থাকলে আমিই এখানকার এমপি হচ্ছি। 

বগুড়া-৪ অর্থাৎ নন্দীগ্রাম-কাহালু আসনের কালিশ পুনাইল মাদরাসা কেন্দ্রের ফলাফল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঘুরছে, সেখানে দেখা গেছে হিরো আলম ২১০ ভোট পেয়েছেন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ সমর্থিত জাসদের তানসেন পেয়েছেন ১২৮ ভোট।
গত বছরের ১০ ডিসেম্বর দলীয় সিদ্ধান্তে বিএনপির সংসদ সদস্যরা পদত্যাগ করায় বগুড়ার দুটি আসন শূন্য হয়ে পড়ে। এই শূন্য আসনে উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করার পর থেকেই আলোচিত হয়ে আসছিলেন আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলম।।
Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Khulnar Kagoj
ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট Shakil IT Park