বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পাইকগাছার গদাইপুর ইউ’পিতে ১৫৪৭টি পরিবারের মাঝে টিসিবি পন্য বিতরণ খুলনায় ই-গভর্ন্যান্স ও উদ্ভাবন উদ্যোগ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত বাগেরহাটের রামপালে ইছালে ছওয়াব মাহফিলের রান্না করা মাংশ বিক্রি করায় এলাকায় তীব্র ক্ষোভ পুলিশ ও র‍্যাব এর যৌথ অভিযানে উদ্ধার হলো মহাসিন স্কুলের প্রধান শিক্ষকের পূত্র শাফিন বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি যুবক নিহত দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ বিদ্যুৎ উৎপাদনের রেকর্ড আজ কেসিসির সাবেক কাউন্সিলর পিন্টুর বাসভবনে হামলার সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন পাইকগাছায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে পানি সংরক্ষণের জলাধার বিতরণ খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা ছোট পর্দার অভিনেতা রুমির ইন্তেকাল

মোড়েলগঞ্জে সাংবাদিকের উপর হামলা

খুলনার কাগজ
  • আপডেট সময় : শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২২

মোরেলগঞ্জ প্রতিনি।।বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে এসএম সাইফুল ইসলাম কবির (৪৮) নামের এক সাংবাদিককে মারধর করেছে সরকার দলীয় নেতাকর্মীরা। শনিবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে সাইনবোর্ড-বগি আঞ্চলিক মহাসড়কের মাঝিবাড়ি এলাকায় চেক পোস্টে দায়িত্বরত কর্মীরা এই হামলা করেন। এসময় এসএম সাইফুল ইসলাম কবিরের স্ত্রী সাথী ইসলাম, বড় ভাই আব্দুল রব ফকির ও অটো চালক অহিদুলকেও মারধর করে তারা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে পুলিশ লাঠি উদ্ধার করেছে।

মারধরের শিকার এসএম সাইফুল ইসলাম কবির দৈনিক অবজারভার পত্রিকার মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধি এবং উপজেলার ভাইজোড়া এলাকার বাসিন্দা। সে মোরেলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন।

সাংবাদিক এসএম সাইফুল ইসলাম কবির বলেন, পারিবারিক কাজ সেরে অটোতে করে স্ত্রী ও বড় ভাইকে নিয়ে মোংলা থেকে ফিরছিলাম। পথিমধ্যে মাঝিবাড়ি এলাকায় পৌছালে নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সাব্বির হোসেন সুমনের নেতৃত্বে আমাদের অটো আটকে দেওয়া হয়। সাংবাদিক পরিচয় দেওয়ার পরেও সুমনসহ আরও কয়েকজন আমাকে মারধর করে। আমার স্ত্রী, আমার বড় ভাই ও অটো চালককেও মারধর করে তারা।

এসএম সাইফুল ইসলাম কবিরের স্ত্রী সাথী ইসলাম বলেন, আমরা কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা আমাদের উপর হামলা করে। আমার স্বামীকে ওরা অটো থেকে টেনে বের করে নেওয়ার চেষ্টা করে। আমি অনেক কষ্টে ধরে রেখেছি। আমরাতো আওয়ামী পরিবার আমাদের কি দোষ, যে পথে ঘাটে মার খেতে হবে।

মারধরের বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে যুবলীগ নেতা সাব্বির হোসেন সুমন বলেন, একটি ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। এজন্য আমি এবং চেকপোস্টে থাকা কয়েকজন সাংবাদিক সাইফুল ইসলামের কাছে ক্ষমাও চেয়েছি।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ সাইদুর রহমান বলেন, একটা ঘটনা শুনেছি। অভিযোগ দিলে আমরা প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

 

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Khulnar Kagoj
ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট Shakil IT Park