বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পাইকগাছায় বাল্য বিবাহ বন্ধ সহ অর্থ দন্ড প্রদান করেন-ইউএনও মাহেরা নাজনীন খুলনার গাইকুরে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় যুবকের মরদেহ উদ্ধার রামপালে উপজেলা নির্বাচনে ৩ পদে ১২ জনের মনোনয়নপত্র জমা পূত্র পাচারের অভিযেগে এক নারীর বিরুদ্ধে আড়ংঘাটা থানায় অভিযোগ দিঘলিয়া উপজেলা প্রশাসনের বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপিত মোংলা-ঘোষিয়াখালী চ্যানেলের তীরভূমি দখলের মহোৎসব; নাব্যতা সঙ্কটের শংকা পাইকগাছায় ১ম ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ একাডেমির উদ্বোধন খুলনায় পহেলা বৈশাখ উদযাপন বাঙালি জাতির শাশ্বত ঐতিহ্যের প্রধান অঙ্গ পহেলা বৈশাখ : রাষ্ট্রপতি মুক্তিপণ পেয়ে জাহাজ ছাড়ে জলদস্যুরা, নাবিকরা সুস্থ : মালিক পক্ষ

ভারতে নারী পাচারকারী চক্রের মূল হোতাসহ ৩ জনকে গ্রেফতার

খুলনার কাগজ
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ জুন, ২০২৩

 

ক্রাইম রিপোর্টার : ভারতে নারী পাচারকারী চক্রের মূল হোতা সহ ৩ জনকে সাতক্ষীরা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যব-৬।

র‌্যাব এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানা গত ২১/০৩/২০২৩ তারিখ সন্ধায় শ্যামপুর থানাধীন জুরাইন পাইপরাস্তা এলাকা হতে এক নারীকে আসামীরা সৌদিআরবে ভাল বেতনে চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে ইন্ডিয়া বসিরহাট নিয়া যায়।পরবর্তীতে তাকে কলকাতার একটি যৌনপল্লীতে বিক্রি করে দেয়। অতঃপর ভিকটিম যৌনপল্লীর অত্যাচার সহ্য করতে না পারায় উক্ত যৌনপল্লী পরিচালনাকারী লোকজন তাকে আসামীদের নিকট ফেরৎ প্রদান করে তাদের কাছ থেকে গৃহিত অর্থ ফেরত চাইলে আসামীরা অন্য একটি হোটেলে নিয়ে ভিকটিমকে বেধে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতে থাকে যাতে সে যৌনপল্লীতে যৌনকর্মী হিসেবে কাজ করতে রাজি হয়। তখন ভারতীয় একটি এনজিও বিডিএল স্মাইল চাইল্ড ফাউন্ডেশন উক্ত ঘটনা জানতে পেরে ভিকটিমকে উদ্ধার করে। ভিকটিম বর্তমানে উল্লেখিত এনজিওর হেফাজতে আছে।আসামীরা সংঘবদ্ধ মানবপাচার চক্রের প্রধান ও সক্রিয় সদস্য। নিরীহ দরিদ্র মেয়েদেরকে সৌদিআরবসহ বিভিন্ন দেশে ভালো বেতনে চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারনার ফাঁদে ফেলে নগদ টাকা আত্মসাৎ করা ও দেশের বাহিরে মোটা অংকের টাকার বিনিময় পতিতালয়ে বিক্রি করাই তাদের পেশা। উক্ত ঘটনার বিষয় অবগত হয়ে ভিকটিমের স্বামী মোঃ ফয়সাল ডিএমপি, ঢাকা শ্যামপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এরই ধারাবাহিকতায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যব-৬, সিপিসি-১, সাতক্ষীরা এর একটি আভিযানিক দল ২২ জুন ২০২৩ তারিখ সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর থানা এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে নারী অপহরন পূর্বক পতিতাবৃত্তি করানোর জন্য বিদেশে পাচার করা সংঘবদ্ধ চক্রের প্রধান এজাহারনামীয় ১নং আসামী মোঃ ইমরান গাজী (৩০) ২।সাবানা সুলতানা (২৫)উভয় থানা- শ্যামনগর, জেলা- সাতক্ষীরা এবং ৩।আব্দুস সালাম শেখ, থানা- কয়রা, জেলা- খুলনা’কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামীরা জানায় যে, ইতিপূর্বে কয়েকজন নারীকে তারা পাশ্ববর্তী দেশে পাচার করে।
গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে ডিএডি, ঢাকা শ্যামপুর থানায় হস্তান্তর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Khulnar Kagoj
ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট Shakil IT Park