সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বটিয়াঘাটায় কৃষি ব্যাংক কর্তৃক গ্রাহক সেবা উন্নয়ন বিষয় মতবিনিময় সভা ইবাদত বন্দেগী আর ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র শবে বরাত পালিত বাংলাদেশের বিচারকাজ পর্যবেক্ষণ করলেন ভারতের প্রধান বিচারপতি গর্ভের সন্তানের লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না: হাইকোর্ট বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হলেন ৫০ নারী, গেজেট মঙ্গলবার পাইকগাছায় ৫০০’গ্রাম গাঁজা সহ আটক-২ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ফরহাদ সরদার রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম) প্রাপ্তির জন্য নির্বাচিত খুলনায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে চারটি দোকান ভস্মীভূত কুরআন ও দ্বীনি শিক্ষা শিক্ষার্থীদের ধর্মীয় মূল্যবোধের আদর্শ নাগরিক গড়ে তুলবে ; শেখ জুয়েল এমপি নগরীতে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় যুবক নিহত

বটিয়াঘাটায় প্রকাশ‍্যে এক মহিলা মুদি ব‍্যবসায়ীকে মারধারের অভিযোগ

খুলনার কাগজ
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৫ মে, ২০২৩

 

বটিয়াঘাটা (খুলনা) প্রতিনিধি।।খুলনা বটিয়াঘাটার সদরে প্রকাশ‍্য দিবালোকে এক মুদি ব‍্যবসায়ী শাহিনুর বেগমের উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে।গত সোমবার শাহিনুর বেগম দোকানের সামনে রাস্তার উপর কতিপয় ব্যক্তি বিশেষ ধারা আক্রমণের শিকার হন।তিনি বলেন স্থানীয় মনিরুল ইসলাম মনির নেতৃত্বে সাবিনা বেগম,রুনু বেগম ও মোঃ টিপু বাহিনী তার উপর অর্তকিত হামলা করে তাকে গুরুতর আহত করেন। এই মর্মে শাহিনুর বেগম বাদী হয়ে বটিয়াঘাটা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন বলে জানিয়েছেন।উল্লেখিত অভিযোগে ভুক্তভোগী শাহীনুর বেগম বলেন,আমার স্বামী সন্তান নিয়ে রাস্তার পাশে অতিকষ্টে সরকারী জায়গায় দোকান ঘর করে ব্যবসার পাশাপাশি আমি দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছি। এলাকার ভূমি দস্যু সন্ত্রাসী নিজেকে মুক্তিযোদ্ধা পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সময় আমাকে সহ রাস্তার পাশের অস্থায়ী বসবাস করা লোকজনদের উচ্চেদ করার জন্য প্রায়ই হুমকি ধামকি প্রদান করে। আমি বিষয়টি নিয়ে মনিরুল ইসলাম মনির সাথে কথা বলতে গেলে সে আমাকে বিভিন্ন ধরনের কু-প্রস্তাব দেয়।আমি তার কু-প্রস্তাবে রাজি না হলে এবং বিষয়টি আমার স্বামীকে জানালে সে আমাকে সহ আমার স্বামীকে রাস্তার পাশ থেকে উচ্ছেদ করার জন্য কায়দার আটতেতে থাকে। তারই সুত্র ধরে গত ২১ মে ২০২৩ তারিখ বেলা অনুমান ১১ টার দিকে মনিরুল ইসলাম মনির নেতৃত্বে সকল বিবাদীরা লাঠী সোঠা,লোহার রড,রাম দা নিয়ে আমার দোকান/বসতঘরের সামনে গিয়ে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে।আমি আমার দোকান/ঘরে বসে বিবাদীদের গালিগালাজ করতে নিষেধ করলে বিবাদী হুকুম দিয়ে বলে শালিকে দোকান থেকে টেনে বের করে নিয়ে আয় এবং মারপিট করে মেরে ফেল। হুকুম পাওয়ার সাথে সাথে অন্যান্য ২ ও ৩ নং বিবাদী আমার দোকান ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে আমার চুলির মূঠি ধরে দোকান ঘরের মধ্যে ফেলে এলোপাতাড়ি মারপিট করতে থাকে।আমি তাদের ঠেকানোর চেষ্টা করলে ১ নং বিবাদী সুযোগ বুঝে আমার দোকানের ক্যাশ বাক্সে থাকা নগদ ১০,০০০/- টাকা নিয়ে নেয়।

 

এ বিষয়ে স্থানীয় প্রতক্ষদর্শী মমতাজ বেগম,রাবেয়া বেগম,শামসুল হক সহ এলাকাবাসী বলেন মনিরুল ইসলাম এলাকায় বিভিন্ন অপকর্মের সংঙ্গে জড়িত। কেসমত ফুলতলা কর্মজীবী সমবায় সমিতির সভাপতি আসাদুজ্জামান উজ্জ্বল বলেন,ঘটনাটি আমি শুনেছি। তদন্ত পূর্বক সঠিক ন‍্যায় বিচারের জোর দাবি করছি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিরুল ইসলাম মনি খুলনার কাগজকে বলেন আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা সঠিক নয় মিথ্যা ভিত্তিহীন।বটিয়াঘাটা থানার ওসি তদন্ত মোঃ জাহেদুর রহমান বলেন,অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Khulnar Kagoj
ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট Shakil IT Park