শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৪:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
খুলনায় পাঁচ দিনব্যাপী জাতীয় পিঠা উৎসবের উদ্বোধন স্ত্রী ও তিন সন্তানকে নিয়ে পাশাপাশি শায়িত হলেন মোবারক কে কোন মন্ত্রণালয় পেলেন নতুন প্রতিমন্ত্রীরা ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন সভাপতি রায়হান, সম্পাদক ফয়সাল যে কোন ধর্মীয় উৎসব সকলের মাঝে সম্প্রীতি বন্ধনের সৃষ্টি করে : ভূমিমন্ত্রী বাগেরহাটের রামপালে সাংবাদিক তুহিনের ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে দূর্ধর্ষ চুরি পাইকগাছায় জুয়ার সরঞ্জাম ও নগদ অর্থ সহ জুয়াড়ি আটক-৮ বেইলি রোডে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নারী-শিশুসহ এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৪৫ জন খুলনার বইমেলায় পৌনে ৫ কোটি টাকার বই বিক্রি কাচ্চি ভাই’‌তে ভয়াবহ আগুন, নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ১১ ইউনিট

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে কেক কাটেন আড়ংঘাটা থানার ওসি ওয়াহিদুজ্জামান!

খুলনার কাগজ
  • আপডেট সময় : শনিবার, ১৮ মার্চ, ২০২৩

ইমরান মোল্লা স্টাফ রিপোর্টার।।বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে কেক কাটেন আড়ংঘাটা থানার ওসি ওয়াহিদুজ্জামান।

খুলনা আড়ংঘাটা থানার মানবিক এই ওসি, আজ ১৮ মার্চ শনিবার বিকাল ৫ টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৩ তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে কেক কাটেন এবং শিশুদের মাঝে ফুল, ফল ও কেক বিতরণ করেন।শিশুদের নিয়ে এসময় তাকে বেস আনন্দ উল্লাস করতে দেখা যায়।

 

তিনি জানান, গোপালগঞ্জের এক প্রত্যন্ত অঞ্চলের ছায়া সুনিবিড় ছোট্ট একটি গ্রামের নাম টুঙ্গীপাড়া।গ্রামটির কোল বেয়ে বয়ে যাওয়া মধুমতী নদী।এই গ্রামেই ১৯২০-র ১৭ মার্চ জন্মেছিল এক শিশু।ছোটবেলায় বাবা-মা আদর করে তাকে ডাকতেন খোকা বলে।ছোট্ট গ্রামের এই ছোট্ট খোকা একদিন হয়ে ওঠেন বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত এক নেতা, আর তার নাম হলো শেখ মুজিবুর রহমান।অবশ্য নামটি রেখেছিলেন তাঁর মাতামহ। আর শেখ মুজিবুর রহমান থেকে বঙ্গবন্ধু; এবং সব শেষে জাতির জনক, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি। কথায় বলে উঠন্তি মূলো পত্তনেই চেনা যায়।অথবা সকাল বলে দেয় সারা দিনের কথা। পেছন ফিরে দেখলে বুঝতে অসুবিধা হয় না শিশু খোকা কেন ও কীভাবে বঙ্গবন্ধু হয়েছিলেন। শিশু বঙ্গবন্ধুর বেড়ে ওঠা জীবনের অনেক ঘটনা ছিল যা বলে দিয়েছিল, এই খোকা আর দশটি সাধারণ খোকার মতো নয়; এই খোকা ব্যতিক্রমী খোকা ছিল। কালক্রমে এই ব্যতিক্রমী খোকা হয়েছিল বাঙালির ব্যতিক্রমী নেতা।

 

তিনি আরো বলেন আমাদের শিশুরাই হবে ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্ন পূরণের সারথি। শিশুদের মনে দেশপ্রেম জাগ্রত করে তাদের ব্যক্তিত্ব গঠন, সৃজনশীলতার বিকাশ এবং আত্মবিশ্বাসী করে গড়ে তুলতে দলমত নির্বিশেষে আমাদের সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।

আগামী দিনের কর্ণধার শিশু-কিশোরদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করে ওসি ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন,‘আসুন, আমরা শিশুদের সুন্দর ভবিষ্যৎ ও কল্যাণে আমাদের বর্তমানকে উৎসর্গ করি।সবাই মিলে জাতির পিতার অসাম্প্রদায়িক, ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলি।

 

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Khulnar Kagoj
ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট Shakil IT Park