সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রূপসায় বিদ্যুৎ স্পষ্টে একজনের মৃত্যু খালিশপুর থানা পুলিশের অভিযানে ১ টি ল্যাপটপ ও ক্যামেরা সহ চোর চক্রের সদস্য গ্রেফতার খেলা ধুলা শিক্ষার্থীদের মন ও শরীর দুটোই ভালো রাখে-ভূমিমন্ত্রী বাড়লো এলপিজির দাম অবৈধ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিকে অভিযান জোরদার হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী খুলনায় ভূমিদস্যু ও চাঁদাবাজের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় মিথ্যা মানববন্ধন ও গায়েবী মামলার হুমকি রামপালে পুলিশের অভিযানে নারী মাদক কারবারি আটক খুলনার পাইকগাছায় বিশ্ব বন্যপ্রাণী দিবস পালিত বাগেরহাটের রামপালে বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাতীয় ভোটার দিবস পালন খেলা ধুলা শিক্ষার্থীদের মন ও শরীর দুটোই ভালো রাখে-ভূমিমন্ত্রী

নগরীর খালিশপুরে এক বিধবাকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদের চেষ্টা

খুলনার কাগজ
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২২

নিজস্ব প্রতিনিধি : বৃস্পতিবার সকাল অনুমান ৯.০০ ঘটিকার সময় খুলনা নগরীর খালিশপুর থানাধীন রোড নং ১৭৫, বাড়ি নং-ডি ২৮ আবাসিক এলাকার বাসিন্দা শেফালী বেগমকে তাহার ছেলেরা সিরাজুল ইসলাম মানিক, রবিউল ইসলাম পলাশ, ইসমাইল হোসেন রতন সহ অজ্ঞাতনামা ৫/৭ জন মিলে নিজ বাড়ি হতে উচ্ছেদের চেষ্টা চালান বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।।

ঘটনার বিবরণে জানা যায় শেফালী বেগমের স্বামী মৃত মোঃ শহিদুল ইসলাম উক্ত বাড়িটি ক্রয় করে স্ত্রীসন্তান দেরকে নিয়ে বসবাস করতে থাকেন।গত ইংরেজী ১৯/০৮/২০১৭ তারিখে তাহার স্বামী শহিদুল ইসলাম মৃত বরণ করেন।

স্বামীর মৃত্যুর পর তার পুত্রগণ পিতার সমস্ত ব্যাবসায়িক মালামাল ভাগ বাটোয়ারা করে নেয়। তাহার জীবন ধরণের জন্য পুত্রগণ কোন সহযোগিতা না করে শেফালী বেগমের নিজ নামে থাকা ২ টি পাইলিং মেশিন জোর জবরদস্তি  তাহার পুত্রগণ অবৈধ ভাবে দখল করে রেখেছে। এমতবস্থায় তিনি দাবি করেন সন্তানদের সহযোগিতা ছাড়া তিনি বর্তমানে অত্যান্ত মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

তিনি সন্তানদেরকে বাড়ি থেকে তাকে উচ্ছেদ না করতে অনুরোধ করলেও তারা অগ্রাহ্য করে তাকে টেনেহেঁচড়ে বাড়ি থেকে বের করার চেষ্টা করে এবং ঘরের বিভিন্ন রুমে তালা দিয়ে দেয়।তারা বলে তোমাকে বাড়ি থেকে বের করে আমরা এই বাড়ী বিক্রি করে অন্যদেরকে বুঝিয়ে দেব।তারা আরো বলেম থানা পুলিশ করে আমাদের কোন কিছু করতে পারবা না।তুমি এখনি বাড়ি থেকে বের হয়ে যাও। এ সময় শেফালি বেগম বলেন আমি এখন কোথায় যাবে জবাবে ছেলেরা তাকে বৃদ্ধাশ্রমে চলে যেতে বলেন।

শেফালী বেগম আরো দাবি করেন এ বিষয়ে এর আগেও স্থানীয় কাউন্সিলর ও থানায় অভিযোগ করা হলেও এর কোন সমাধান হয়নি। এমতবস্থায় তিনি কান্নাজড়িত কণ্ঠে নিজ পুত্রদের এহেন কর্মকান্ডের বিচার দাবি এবং সাংবাদিক ও প্রশাসন সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

 

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Khulnar Kagoj
ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট Shakil IT Park