সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রূপসায় বিদ্যুৎ স্পষ্টে একজনের মৃত্যু খালিশপুর থানা পুলিশের অভিযানে ১ টি ল্যাপটপ ও ক্যামেরা সহ চোর চক্রের সদস্য গ্রেফতার খেলা ধুলা শিক্ষার্থীদের মন ও শরীর দুটোই ভালো রাখে-ভূমিমন্ত্রী বাড়লো এলপিজির দাম অবৈধ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিকে অভিযান জোরদার হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী খুলনায় ভূমিদস্যু ও চাঁদাবাজের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় মিথ্যা মানববন্ধন ও গায়েবী মামলার হুমকি রামপালে পুলিশের অভিযানে নারী মাদক কারবারি আটক খুলনার পাইকগাছায় বিশ্ব বন্যপ্রাণী দিবস পালিত বাগেরহাটের রামপালে বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাতীয় ভোটার দিবস পালন খেলা ধুলা শিক্ষার্থীদের মন ও শরীর দুটোই ভালো রাখে-ভূমিমন্ত্রী

খুলনায় গরু কিনলে ছাগল ফ্রি

খুলনার কাগজ
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২৭ জুন, ২০২৩

 

স্টাফ রিপোর্টার : গরু কিনলে ছাগল ফ্রি অফার চলছে খুলনার কোরবানির পশুর হাটে। তবে, সব ব্যাপারীর ক্ষেত্রে নয়, এটি একজন ব্যাপারী তাদের আদরে লালিত গরু ‘শান্ত’র ক্ষেত্রে এ অফার দিয়েছেন। ২৭ মণের এ গরুর দাম হাকানো হয়েছে ১০ লাখ টাকা।

অপরদিকে, নগরীর সর্ববৃহৎ কোরবানির পশুর হাটে খুলনার সবচেয়ে বড় গরু ‘সম্রাট’ নজর কাড়ছে ক্রেতাদের। ৫৫ মণ ওজনের সম্রাটের দাম চাওয়া হচ্ছে ১৮ লাখ টাকা। গরুটি বিক্রির জন্য চট্রগ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন বিক্রেতা।

এদিকে, ঈদের আর মাত্র ৩ দিন বাকি থাকায় ক্রেতারা বাজারে আসতে শুরু করেছেন। বিক্রিও বাড়তে শুরু করেছে। তবে ঈদের দু/একদিন আগেই বিক্রি পুরোপুরি জমবে বলে আশা করছেন ক্রেতা-বিক্রেতারা।

বাগেরহাট জেলা সদরের বারইপাড়ার কাপড়পোড়া গ্রামের বাসিন্দা ব্যাপারী শান্ত খান এ প্রতিবেদককে বলেন, তিনি নিজের বাড়িতে রেখে ‘শান্ত’কে চার বছর ধরে লালন-পালন করেছেন।গরুটি শাহীওয়াল জাতের।ওজন হয়েছে ২৭ মণ। তিনি ১০ লাখ টাকা দাম পেলে গরুটি বিক্রি করবেন। তবে যিনি কিনবেন তার আদরের ‘শান্ত’কে তাকে তিনি উপহার হিসেবে একটি খাশী ছাগল দিবেন। তবে ক্রেতারা ৬-৮ লাখ টাকা পর্যন্ত দাম বলছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

ব্যাপারী শান্ত জানান, গত বছরও তিনি নগরীর জোড়াগেট হাটে গরুটি এনেছিলেন।তখন দাম চাওয়া হয়েছিল ৫ লাখ টাকা।কিন্তু প্রত্যাশিত মূল্য না পেয়ে বিক্রি করেননি।
অপরদিকে,নগরীর সর্ববৃহৎ কোরবানির পশুর হাটে খুলনার সবচেয়ে বড় গরু ‘সম্রাট’ নজর কাড়ছে ক্রেতাদের।৫৫ মণ ওজনের সম্রাটের দাম চাওয়া হচ্ছে ১৮ লাখ টাকা।নগরীর দৌলতপুরস্থ পাবলা মোল্লাবাড়ির মোড়ে মধুমতি ডেইরী ফার্মে এ গরুরটি লালন-পালন করেছেন ব্যবসায়ী শামিম শেখ।তার ফার্মে মোট ৭৫টি গরু রয়েছে। তবে কোরবানির ঈদে এবার ১৫টি গরু বিক্রির উপযোগি করেছেন তিনি।

শামিম শেখ বলেন,তিনি ৫৫ মণ ওজনের সম্রাটের দাম চাচ্ছেন ১৮ লাখ টাকা।তবে ক্রেতারা এখনও তেমন একটা দাম বলছেন না।শুধু শুনছেন। বড় গরুর ক্রেতা কিছুটা কম বলে মনে করছেন তিনি।তিনি জানান, গত ঈদে তিনি ঢাকার গাবতলি হাটে নিয়েছিলেন।কিন্তু কাঙ্খিত দাম না পেয়ে ফেরত আনেন।কাঙ্খিত দাম না পেলে তিনি বিক্রি করবেন বলে জানিয়েছেন।

মধুমতি ডেইরী ফার্মে আসা মো. বেলায়েত শেখ বলেন, খুলনা জেলায় বড় বড় গরু আছে শুনেছি। কিন্তু এই ফার্মে এতো বড় বড় গরু আছে আগে দেখিনি। এবার আসলাম গরু দেখতে। এখানে অনেকেই আসে।ফার্মে সম্রাটসহ বিভিন্ন নামের গরু আছে৷ দেখতে খুব সুন্দর, গরুও বিশাল বড়। শুনেছি হাটে নিয়ে যাবে, তাই দেখতে এসেছি। ক্রেতা ফরিদুজ্জামান বাবু বলেন, অনলাইনে বড় বড় গরু দেখি। জানতে পেরেছি এখানে বড় একটি ফার্মে বড় বড় গরু রয়েছে। এটা দেখার জন্য এখানে এসেছি। ডনসহ বিভিন্ন নামের বড় বড় গরু আছে। শহরের উপরে এতো সুন্দর একটি ফার্ম হতে পারে এটা না দেখলে বুঝতাম না।
এদিকে, জোড়াগেট হাটে ১৭টি গরু নিয়ে আসা নড়াইলের কালিয়া উপজেলার মহিষখোলা গ্রামের ব্যাপারী ইখলাস শেখ বলেন, এখনও বিক্রি শুরু হয়নি। ক্রেতারা আসছেন, দরদাম করছেন। তবে আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে বিক্রি জমবে বলে আশা করছেন তিনি।

তিনি জানান, গরুর খাবারের দাম এনেক বেড়ে গেছে। এ কারণে গ্রাম থেকে গরু চড়া দামে তাদের কিনতে হয়েছে। দাম না পেলে লোকসান গুণতে হবে- বলেন তিনি। একই এলাকার ব্যাপারী ইকবাল মোল্লা বলেন, তিনি ১৬টি গরু নিয়ে এসেছেন। কিন্তু একটিও বিক্রি করতে পারেননি। ক্রেতা এনামুল হক ঝন্টু বলেন, এবার পশুর দাম বেশ চড়া। যে কারণে ক্রেতারা বিভিন্ন হাট, খামার এবং গৃহস্থের বাড়ি বাড়ি গিয়ে গরুর দরদাম করছেন।তার মধ্যেই ক্রেতারা পছন্দের পশু ক্রয় করছেন। খুলনা জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. এসএম আইয়ুব আলী বলেন, এ বছর ৮৯ হাজার ৮৬৭ কোরবানির পশুর চাহিদা রয়েছে। আর খামারি ও ব্যক্তি পর্যায়ে কোরবানিযোগ্য পশু আছে ৯২ হাজার ৩৭৫টি। ফলে এবার কোরবানির পশু উদ্বৃত্ত আছে। ফলে পশুর কোনো সংকট হবে না।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Khulnar Kagoj
ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট Shakil IT Park