মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
খুলনায় ই-গভর্ন্যান্স ও উদ্ভাবন উদ্যোগ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত বাগেরহাটের রামপালে ইছালে ছওয়াব মাহফিলের রান্না করা মাংশ বিক্রি করায় এলাকায় তীব্র ক্ষোভ পুলিশ ও র‍্যাব এর যৌথ অভিযানে উদ্ধার হলো মহাসিন স্কুলের প্রধান শিক্ষকের পূত্র শাফিন বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি যুবক নিহত দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ বিদ্যুৎ উৎপাদনের রেকর্ড আজ কেসিসির সাবেক কাউন্সিলর পিন্টুর বাসভবনে হামলার সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন পাইকগাছায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে পানি সংরক্ষণের জলাধার বিতরণ খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা ছোট পর্দার অভিনেতা রুমির ইন্তেকাল প্রচণ্ড দাবদাহে খুলনায় কেএমপি কমিশনারের উদ্যোগে বিশুদ্ধ খাবার পানি, জুস ও স্যালাইন বিতরণ

কর্মবিরতি অব্যাহত রাখার ঘোষণা খুলনার চিকিৎসকদের

খুলনার কাগজ
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২ মার্চ, ২০২৩

খুলনা ব্যুরো।।শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের প্লাস্টিক সার্জারী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. শেখ নিশাত আব্দুল্লাহ এর উপর হামলায় জড়িতদের গ্রেপ্তার না হওয়া পর্যন্ত কর্মবিরতি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৩টায় বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) জরুরী সভা শেষে এই ঘোষণা দেন সংগঠনের জেলা সভাপতি ডা. শেখ বাহারুল আলম।

তিনি বলেন, চিকিৎসককে মারধরের ঘটনায় দায়ের করা মামলার আসামী গ্রেপ্তার ও ডাক্তারের নামে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার না হাওয়া পর্যন্ত কর্মবিরতি চলবে। আগামী শনিবার (৪ মার্চ) শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতাল চত্বরে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। একইদিন সন্ধ্যা ৭টায় খুলনা বিএমএ ভবনে কার্যনির্বাহী কমিটির জরুরী সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবে। ওই সভায় পরবর্তী করণীয় বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

ডা. বাহারুল ইসলাম বলেন, আমরা শুধু কর্মস্থলের নিরাপত্তাটুকু চেয়েছি। আজকের দীর্ঘ প্রায় চার ঘণ্টার বৈঠকে চিকিৎসকরা শনিবার সাধারণ সভা ডেকেছেন। সেখানে চিকিৎসকদের গণপদত্যাগের একটি সিদ্ধান্ত চলে আসতে পারে। কারণ আমি পদে থেকে আর কতদিন নিবৃত থাকব।

এ সময় বিএমএ খুলনার সাধারণ সম্পাদক ডা. মেহেদী নেওয়াজসহ চিকিৎসকরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে দ্বিতীয় দিনের মতো কর্মবিরতি শুরু করেন  চিকিৎকরা। বৃহস্পতিবারও হাসপাতালে যাননি কোনো চিকিৎসক। টানা দুই দিন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে চিকিৎসক না থাকায় অবর্ণীয় দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন রোগীরা।

প্রসঙ্গত, ডা. নিশাত আবদুল্লাহর ওপর হামলার প্রতিবাদে বুধবার সকাল ৬টা থেকে কর্মবিরতি শুরু করেন চিকিৎসকরা। এতে করে সরকারি হাসপাতাল ও বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসক কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়ে। দূর দূরান্ত থেকে আসা রোগীরা চিকিৎসা নিতে না পেরে ফিরে যাচ্ছেন। হাসপাতালে ভর্তি রোগীরাও সেবা পাচ্ছেন না।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Khulnar Kagoj
ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট Shakil IT Park